Technical Education and General Education Paragraph For All Classes

Technical Education and General Education Paragraph For JSC/SSC/HSC All Classes

 

Technical Education and General Education Paragraph For JSC/SSC/HSC All Classes 


Technical education is one of the modern education in our country. Currently, technical education is practical education with the touch of technology. That is, education goes beyond the strict rules and develops the student society of the country as people who are skilled and have practical knowledge in a particular subject. In recent times the importance of technical education in our country is so high, which we are experiencing step by step in our daily life. From small things to major repairs in our daily lives, people are not always available on time. Then a person educated in technical education can solve it by himself without taking help from others. Vocational education or technical education is an education system where there is no such thing as a pass-fail. So you are given the opportunity to test and prove yourself as many times as you need to perfect your skills and become a competitor. In technical education, practical application is given more importance than theoretical studies, so that one can get educated in technical education and find the best job opportunity by applying one's qualifications. Practical work experience and technical education are also very important for the job. Hence in recent times in the competitive market technical education is playing a very important role in creating qualified competitors.

আমাদের দেশের আধুনিক শিক্ষার মধ্যে কারিগরি শিক্ষা অন্যতম। বর্তমানে কারিগরি শিক্ষা হলো প্রযুক্তির ছোঁয়ায় ব্যবহারিক শিক্ষা। অর্থাৎ, শিক্ষা কঠোর নিয়মের বাইরে গিয়ে দেশের ছাত্র সমাজকে একটি নির্দিষ্ট বিষয়ে দক্ষ ও বাস্তব জ্ঞানসম্পন্ন মানুষ হিসেবে গড়ে তোলে। সাম্প্রতিক সময়ে আমাদের দেশে কারিগরি শিক্ষার গুরুত্ব এত বেশি, যা আমরা আমাদের দৈনন্দিন জীবনে ধাপে ধাপে অনুভব করছি। আমাদের দৈনন্দিন জীবনে ছোট ছোট জিনিস থেকে বড় মেরামত পর্যন্ত, মানুষ সবসময় সময়মতো পাওয়া যায় না। তাহলে কারিগরি শিক্ষায় শিক্ষিত ব্যক্তি অন্যের সাহায্য না নিয়ে নিজেই সমাধান করতে পারেন। বৃত্তিমূলক শিক্ষা বা কারিগরি শিক্ষা এমন একটি শিক্ষা ব্যবস্থা যেখানে পাস-ফেল বলে কিছু নেই। তাই আপনাকে আপনার দক্ষতা নিখুঁত করতে এবং প্রতিযোগী হতে যতবার প্রয়োজন ততবার নিজেকে পরীক্ষা করার এবং প্রমাণ করার সুযোগ দেওয়া হয়েছে। কারিগরি শিক্ষায়, তাত্ত্বিক পড়াশোনার চেয়ে ব্যবহারিক প্রয়োগকে বেশি গুরুত্ব দেওয়া হয়, যাতে কেউ কারিগরি শিক্ষায় শিক্ষিত হতে পারে এবং নিজের যোগ্যতা প্রয়োগ করে সর্বোত্তম চাকরির সুযোগ খুঁজে পেতে পারে। বাস্তব কাজের অভিজ্ঞতা এবং কারিগরি শিক্ষাও চাকরির জন্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ। তাই সাম্প্রতিক সময়ে প্রতিযোগিতামূলক বাজারে কারিগরি শিক্ষা যোগ্য প্রতিযোগী তৈরিতে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছে।

Technical Education and General Education Paragraph For SSC/HSC



Education is the backbone of the nation which enlightens the people. In this case, we can say that both types of education play an important role in the development of a nation. General education usually makes a person highly educated. But such education often fails to establish a person in his life, because general education does not specialize a person. As a result, many highly educated people remain unemployed and eventually become a burden to the country. On the other hand, a person with technical education can somehow manage a job or be self-employed. Age of survival of the fittest. So general education often does not land a man a suitable job. Rather it produces highly educated clerks. General education can fulfil educational needs but cannot fulfil basic human needs. A country like Bangladesh needs dedicated staff who can only impart technical education. The surprising thing is that after completing the MBBS course, one can get a job in a bank or a commercial organization. So where is the value of that degree? A money earner can usually be educated. He can contribute to the country and nation with his knowledge. In contrast, technical education is job oriented. It ensures employment in related fields, whereas general education increases excitement and frustration. Technical education should be made compulsory for all. On the contrary, general education should be for selected people only. Technical education is inevitable considering our socio-economic condition. Clerks and officials are needed but besides this, we have to emphasize the formation of skilled workers which is very important. We have to remember that there is no substitute for production and this production is possible only with skilled people. A skilled worker is preferable to a highly educated unemployed person. Education and knowledge are both welcome. But when it comes to the question of reality and realistic values, they should be distinguished.

শিক্ষা জাতির মেরুদন্ড যা মানুষকে আলোকিত করে। এক্ষেত্রে আমরা বলতে পারি উভয় ধরনের শিক্ষাই একটি জাতির উন্নয়নে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। সাধারণ শিক্ষা সাধারণত একজন ব্যক্তিকে উচ্চ শিক্ষিত করে তোলে। কিন্তু এই ধরনের শিক্ষা প্রায়ই একজন ব্যক্তিকে তার জীবনে প্রতিষ্ঠিত করতে ব্যর্থ হয়, কারণ সাধারণ শিক্ষা একজন ব্যক্তিকে বিশেষায়িত করে না। ফলে অনেক উচ্চ শিক্ষিত মানুষ বেকার থেকে যাচ্ছে এবং শেষ পর্যন্ত দেশের বোঝা হয়ে যাচ্ছে। অন্যদিকে, কারিগরি শিক্ষার সাথে একজন ব্যক্তি কোনোভাবে চাকরি পরিচালনা করতে পারেন বা স্ব-নিযুক্ত হতে পারেন। যোগ্যতমের বেঁচে থাকার বয়স। তাই সাধারণ শিক্ষা প্রায়ই একজন মানুষকে উপযুক্ত চাকরি দেয় না। বরং এটি উচ্চ শিক্ষিত কেরানি তৈরি করে। সাধারণ শিক্ষা শিক্ষাগত চাহিদা পূরণ করতে পারে কিন্তু মানুষের মৌলিক চাহিদা পূরণ করতে পারে না। বাংলাদেশের মতো দেশে নিবেদিতপ্রাণ কর্মী দরকার যারা কেবল কারিগরি শিক্ষা দিতে পারে। আশ্চর্যের বিষয় হলো এমবিবিএস কোর্স শেষ করে ব্যাংক বা বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠানে চাকরি পাওয়া যায়। তাহলে সেই ডিগ্রির মূল্য কোথায়? একজন অর্থ উপার্জনকারী সাধারণত শিক্ষিত হতে পারে। সে তার জ্ঞান দিয়ে দেশ ও জাতির জন্য অবদান রাখতে পারে। বিপরীতে, কারিগরি শিক্ষা চাকরিমুখী। এটি সংশ্লিষ্ট ক্ষেত্রে কর্মসংস্থান নিশ্চিত করে, যেখানে সাধারণ শিক্ষা উত্তেজনা এবং হতাশা বাড়ায়। কারিগরি শিক্ষা সবার জন্য বাধ্যতামূলক করতে হবে। বিপরীতে, সাধারণ শিক্ষা শুধুমাত্র নির্বাচিত ব্যক্তিদের জন্য হওয়া উচিত। আমাদের আর্থ-সামাজিক অবস্থা বিবেচনা করে কারিগরি শিক্ষা অনিবার্য। কেরানি এবং কর্মকর্তাদের প্রয়োজন তবে এর পাশাপাশি আমাদেরকে দক্ষ কর্মী গঠনে জোর দিতে হবে যা খুবই গুরুত্বপূর্ণ ।আমাদের মনে রাখতে হবে উৎপাদনের কোন বিকল্প নেই এবং এই উৎপাদন শুধুমাত্র দক্ষ লোক দিয়েই সম্ভব। একজন দক্ষ কর্মী একজন উচ্চ শিক্ষিত বেকার ব্যক্তির চেয়ে পছন্দনীয়। শিক্ষা এবং জ্ঞান উভয়ই স্বাগত। কিন্তু যখন বাস্তবতা এবং বাস্তবসম্মত মূল্যবোধের প্রশ্ন আসে, তখন তাদের আলাদা করা উচিত।

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন

Be alert before spamming comments.

নবীনতর পূর্বতন

Sponsored